শাহের অনলাইন সভা বানচাল করতে বাংলায় ইন্টারনেট বন্ধের অভিযোগ

This article has been copied from "www.bengali.indianexpress.com"

'স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সভা বানচাল করতে সরকার বিভিন্ন জায়গায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছে। গোটা বিষয়টিকে তুলে ধরার জন্য আমরা রাজ্যপালের দ্বারস্থ হচ্ছি।'

অমিত শাহের ভার্চুয়াল জনসভার আগে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে রাজ্য বিজেপি। মঙ্গলবার সকালে রাজ্য বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি তথা সাংসদ সৌমিত্র খাঁ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলাকে বলেন, “স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সভা বানচাল করতে সরকার বিভিন্ন জায়গায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করছি। 

গোটা বিষয়টিকে তুলে ধরার জন্য আমরা রাজ্যপালের দ্বারস্থ হচ্ছি। রাজ্যের কোথায় কোথায় এভাবে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে গোটা বিষয়টি আমরা রাজ্যপালকে জানাব। উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আবেদন করব।”

আজ বেলা ১১টায় ভার্চুয়াল জনসভায় বক্তব্য রাখবেন অমিত শাহ। লক্ষ্য করোনা ও আমফান সংকট মোকাবিলায় মমতা সরকারের ব্যর্থতার প্রচার, উপলক্ষ ২১-শের বিধানসভা ভোটের সলতে পাকানো। এই দুইকে মাথায় রেখেই আজ অনলাইন জনসভায় বাংলার দলীয় নেতা, কর্মীদের বার্তা দেবেন অমিত শাহ। এ রাজ্যে স্বৈরশাসন কায়েম করেছে শাসক দল তৃণমূল। 

GK, কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স, Free মক টেস্ট, WBCS & বিভিন্ন চাকরির পরিক্ষা প্রস্তুতির জন্য এখনই ইনস্টল করুন বেঙ্গল স্টুডেন্ট অ্যাপ 

https://play.google.com/store/apps/details?id=in.bengalstudent.bengalstudent


জোড়া-ফুল কর্মীদের হাতে প্রায়ই মার খেতে হচ্ছে বিজেপি নেতা, কর্মীদের। বারে বারে এই অভিযোগ করে এসেছেন বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব। করোনা-আমফান সংকট মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের অব্যবস্থার বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই সরব গেরুয়া শিবির। রাজ্যে বিধানসভা ভোটেরও আর বেশিদিন বাকি নেই। এই পরিস্থিতিতে অনলাইন ব়্যালিতে দলের প্রচার ও কার্যসূচির রূপরেখা বেঁধে দেওয়া হতে পারে।

দলের প্রাক্তন সভাপতির শাহের জনসভা প্রসঙ্গে বিজেপির সাধারণ সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয় দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছেন, ‘বিজেপি নেতা, কর্মীদের অপদস্ত করছে তৃণমূল সরকার। সংকটের সময় দলীয় নেতাদের ত্রাণ নিয়ে এলাকায় ঢুকতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। সাংসদ তাঁর সংসদীয় এলাকায় পৌঁছতে পারছেন না। এই অবস্থায় অমিত শাহের বক্তব্য দলের নেতা, কর্মীদের উজ্জীবিত করবে।’

পদ্ম শিবিরের পাখির চোখ ‘বাংলা দখল’। তাই জমি জরিপও শুরু করে দিয়েছে গেরুয়া শিবির। রাজ্যের একাংশের মানুষ মমতা সরকারের কাজে বিরক্ত। সূত্রের খবর, একে পুঁজি করেই এবার ভোটের ময়দানে ঝাঁপাতে প্রস্তুত মোদী-শাহরা। মমতা সরকারের গত ৯ বছরের ব্যর্থতার দিক তুলে ধরার পাশাপাশি বিকল্প কি হতে পারে তারই ইঙ্গিত এদিনের সভায় দিতে পারেন অমিত শাহ।

প্রধানমন্ত্রী মোদী ‘আত্মনির্ভর ভারতের’ কথা বলেছেন। বাংলায় নতুন আঙ্গিকে ‘আত্মনির্ভর ভারতের’ কথা তুলে ধরতে পারেন অমিত শাহ। স্বাধীনতার অন্দোলনে এই বাংলার মাটিই স্বদেশী আন্দোলনের সূত্রপাত ঘটেছিল। জানা গিয়েছে সেই আবেগকেই প্রচারে কাজে লাগাতে মরিয়া বিজেপি।

ইতিমধ্যেই অনলাইন জনসভায় বিহারের বিধানসবা ভোটের দামামা বাজিয়েছেন শাহ। এবার লক্ষ্য বাংলা। রাজ্য বিজেপি নেতারা জানিয়েছেন, শাহের বক্তব্য় প্রায় ৭০ হাজার বুথের দলীয় নেতা, কর্মীদের কাছে পৌঁছে যাবে। শুধু তাই নয়, বিদেশে বসবাসকারী এ রাজ্যের ভোটারদেরও এই সভা থেকেই বার্তা দেওয়ার চেষ্টা চালাবে গেরুয়া বাহিনী।

রাজ্য বিজেপির সংগঠনকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। অন্য দল থেকে আসা বহু মুখও সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণের পদের দায়িত্ব পেয়েছেন। মনে করা হচ্ছে এদিন সভায় দলীয় কার্যকর্তাদেরও বার্তা দেবেন অমিত শাহ।
Source of the Article "https://bengali.indianexpress.com/politics/amit-shah-bjp-west-bengal-virtual-rally-latest-updates-229760"